শ্রাবন্তীর ছেলেকে চেনেন? অনেক খানি বড় হয়েছে, দেখুন বর্তমান লুক

শ্রাবন্তী ভারতীয় বাংলা চলচ্চিত্রের একজন সফল অভিনেত্রী। তিনি ১৯৯৭ সালে ‘মায়ার বাঁধন’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে তার অভিনয় জগত শুরু করেন।

২০০৩ সালে তার প্রথম বড় ছবি ‘চ্যাম্পিয়ন’। এই সময় পরিচালক রাজীব বিশ্বাসকে বিয়ে করার পর তিনি পুরোপুরি সংসারী হয়ে যান।

২০০৮ সালে আবার ‘ভালোবাসা ভালোবাসা’ দিয়ে অভিনয়ের মাধ্যমে তিনি টলিউডের ফিরে আসেন। ২০০৩ সালে রাজীব বিশ্বাসকে বিয়ে করার পর তাঁদের একটি পুত্র সন্তান হয়।

সম্পর্কের অবনতির ফলে শ্রাবন্তী রাজীব বিশ্বাস কে ডিভোর্স দিয়ে দেন। এরপর কৃষান নামে একজন মডেলকে বিবাহ করলেও পরবর্তীতে তাদেরও বিচ্ছেদ হয়। এরপর একজন জিম ট্রেনার কেউ বিয়ে করেন শ্রাবন্তী। কিন্তু সেই সম্পর্কও বেশিদিন টেকে না।

বর্তমানে একমাত্র ছেলে অভিমন্যু ওরফে ঝিনুককে নিয়েই সময় কাটাচ্ছেন কলকাতার জনপ্রিয় নায়িকা শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়। ঝিনুক শ্রাবন্তির প্রথম ঘরের সন্তান। রাজীব বিশ্বাস কে ডিভোর্স দেওয়ার পর সন্তান ঝিনুককে তার কাছেই রেখে দেন নায়িকা। এই সন্তানের সঙ্গে নানা ভঙ্গিতে পোজ দিয়ে ছবি তুলে একাধিকবার সমালোচিত হয়েছেন শ্রাবন্তী।

ছেলে ঝিনুককে আগামী দিনে নায়ক হিসাবে পর্দায় দেখতে চান বলে জানিয়েছেন শ্রাবন্তী। ছেলে বড় হয় কি করবে এমন চিন্তা এখন থেকেই শ্রাবন্তীকে ভাবাচ্ছে। কলকাতার একটি ম্যাগাজিনের সাক্ষাৎকারে নায়িকা ছেলে ঝিনুকের ভবিষ্যৎ নিয়ে কথা বলেছেন। মা হিসেবে ছেলেকে ভবিষ্যতে কিভাবে দেখতে চান? এমন প্রশ্নের উত্তরে ঝিনুককে নায়ক বানানোর কথা বলেন শ্রাবন্তী।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Tolly Duniya (@tollyduniya1)

অভিনেতা যীশু এবং তার মেয়ের সাথে অভিনয় করতে গিয়ে শ্রাবন্তী বলেন, এইতো আমি আজ যীশুদার সাথে কাজ করছি। কয়েক বছর পর হয়তো ঝিনুক আর সারা সিনেমা করবে, আর আমি গম্ভীর মুখে ওদের নিয়ে ইন্টারভিউ দেব। শ্রাবন্তী আরো বলেন, মাত্র ১২ বছর বয়সে ৫ ফুট ১০ ইঞ্চি উচ্চতা ঝিনুকের। কি হবে কে জানে? আমার ছেলে ভবিষ্যতে নায়ক হতে পারে। আমার ইচ্ছা ঝিনুক নায়ক হবে। তবে এমন উচ্চতা নিয়ে নায়িকা পাবে কি করে কে জানে।