সাদাকালো জামানার সৌরভ-ডোনার প্রেম কাহিনী হার মানাবে সিনেমার গল্পকেও

সৌরভ গাঙ্গুলী একজন প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার এবং ভারতীয় জাতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনায়ক।
তিনি ১৯৭২ সালে কলকাতার বেহালায় একটি প্রতিষ্ঠিত পরিবারের জন্মগ্রহণ করেন। ভারতের ক্রিকেট দলের প্রথম বাঙালি অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলী।
ব্যাট বল হাতে মাঠে আর তাকে দেখা যায় না, তবে শ্রদ্ধায় তিনি এখনো ভারতবর্ষের সেরা ক্রিকেটারদের মধ্যে অন্যতম। ক্রিকেটের বাইরে
একজন টিভি উপস্থাপক হিসাবেও সুনাম অর্জন করেছেন ক্রিকেটের দাদা বলে খ্যাত সৌরভ। ক্রিকেট কিং সৌরভ গাঙ্গুলী ১৯৯৭ সালে ভালোবেসে বিয়ে করেছিলেন নৃত্য শিল্পী গোনা রায়কে।
চন্ডী গঙ্গোপাধ্যায়ের রক্ষণশীল পরিবারের ডানপিঠে সৌরভ ছিলেন প্রথম যিনি লাভ ম্যারেজ করেছেন। সৌরভ ও ডোনার প্রেম কাহিনী ও বিয়ে একটি রোমান্টিক প্রেম গল্পকেউ হার মানাবে।
সৌরভ গাঙ্গুলী যখন স্কুলে পড়তো তখন থেকেই নাকি তাদের মধ্যে একটা না বলা চোখের ভালোবাসা তৈরি হয়।
জানা যায়, একদিন দাদা প্র্যাকটিস শেষ করে বাড়ি ফিরছিলেন ঠিক এমন সময় ডোনা বাড়ি থেকে বের হয়ে প্রাইভেট পড়তে স্যারের বাড়ি যাওয়ার উদ্দেশ্যে রওনা হয়। এমন সময় রাস্তার কাদায় পা পিছলে ডোনা পড়ে যায়। ঠিক সেই মুহূর্তে সিনেমার নায়কের মত দাদা এসে হাজির হয় এবং ডোনার হাত ধরে তাকে বাড়ি দিয়ে আসেন।

সেই দিন থেকেই প্রথম তাদের কথাবার্তা শুরু হয় এবং তারপর ধীরে ধীরে ভালোলাগা এবং ভালোবাসা। তাদের এই ভালোবাসাকে চিরদিনের জন্য ধরে রাখতে ১৯৯৭ সালে তাঁরা বিয়ে করেন। তাদের ঘরে ২০০১ সালে জন্ম হয় একটি কন্যা সন্তান যার নাম সানা গাঙ্গুলী। বর্তমানে তার বয়স ২১ বছর। সৌরভের স্ত্রীর একটি নাচের স্কুল আছে। যেখানে ডোনা নিজেই নাচ শেখান। ডোনা একজন ভালো মনের মানুষ। এই নিয়ে সেই স্কুলের সকলেই তার খুব প্রশংসা করেন।